রামগড় পাতাছড়া ইউপিতে আওয়ামী লীগের তৃণমূলের ভোটে জয়ী কাজী আলমগীরকে চায় নেতাকর্মী ও এলাকাবাসী

রামগড় পাতাছড়া ইউপিতে আওয়ামী লীগের তৃণমূলের ভোটে জয়ী কাজী আলমগীরকে চায় নেতাকর্মী ও এলাকাবাসী

রামগড় অফিস:
খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলার ২নং পাতাছড়া ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের ৪ মনোনয়ন প্রত্যাশীর মধ্যে তৃণমূলের ভোটে প্রথম হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক কাজী নুরুল আলম (আলমগীর)। তৃণমূলের ৮৭টির ভোটের মধ্যে ভোট দিয়েছেন ৬৯ জন। কাজী আলমগীর পেয়েছেন ৫৭টি, বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মনীন্দ্র ত্রিপুরা ৬টি, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সদস্য মোঃ বেলায়েত হোসেন ৬টি এবং বরুন ত্রিপুরা ০ ভোট পেয়েছেন। ভোটাভুটি শেষে ফলাফল ঘোষণা করেন রামগড় উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো: মোস্তফা হোসেন।

ত ২৪ অক্টোবর পাতাছড়া ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের সভাপতি মো: আবদুল আলীম দুলাল এর সভাপতিত্বে আসন্ন ২নং পাতাছড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে দলীয় মনোনয়ন ও নৌকার মাঝি নির্ধারণের জন্য ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রামগড় উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো: মোস্তফা হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য শের আলী ভূঁইয়া, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান বিশ্ব প্রদিপ ত্রিপুরা, রামগড় পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সদ্য বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত পৌর মেয়র মো: রফিকুল আলম কামাল প্রমুখ।

তৃণমূল ভোটের প্রধান নির্বাচন কমিশনার পাতাছড়া ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের সভাপতি মো: আবদুল আলীম দুলাল জানান, ইউনিয়ন নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী তালিকা প্রেরণের সময় হাতে থাকায় নিয়মতান্ত্রিকভাবেই তৃণমূলের ভোট করা হয়েছে। দলীয় প্রার্থী নির্ধারনের তৃণমূলের ভোটে প্রাপ্ত ফলাফলের তালিকাসহ সকল মনোনয়ন প্রত্যাশীর নাম জেলা কমিটির মাধ্যমে স্থানীয় সরকার নির্বাচনের জন্য গঠিত আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় মনোনয়ন বোর্ডে প্রেরণ করা হবে। কেন্দ্র থেকেই চূড়ান্তভাবে দলীয় প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হবে। কেন্দ্র যাকে প্রার্থী মনোনয়ন দেবেন সকলে মিলে নৌকার সেই প্রার্থীর পক্ষেই কাজ করবেন।

দিকে, পাতাছড়া ইউনিয়নের সাবেক সফল ইউপি চেয়ারম্যান কাজী নুরুল আলম আলমগীর তৃণমূল ভোটে অগ্রগামী হওয়ায় দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের মাঝে দারুণ উচ্ছ্বাস দেখা যায়। এখন শুধু ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও স্থানীয় এলাকাবাসী তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের ভোটাভুটির বাস্তবায়ন চায়।

সামঞ্জস্যপূর্ণ সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।