ব্রিটিশ সরকার লজ্জা-শরমের মাথা খেয়েছে: হামাস

ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাসকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে ব্রিটেন। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় শুক্রবার এক এ খবর জানিয়েছে।

ব্রিটিশ সরকারের পক্ষপাতমূলক আচরণের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস। খবর আল-জাজিরার।

এক বিবৃতিতে সংগঠনটি বলেছে, এ ধরনের কাজ না করে ব্রিটিশ সরকারের উচিত অবৈধ রাষ্ট্র সইসরাইল প্রতিষ্ঠায় নিজেদের ভূমিকার কথা স্মরণ করে লজ্জিত হওয়া।

হামাসের বিবৃতিতে ব্রিটিশ সরকারের সিদ্ধান্তে দুঃখ প্রকাশ করে বলা হয়, ফিলিস্তিন সংকটের ব্যাপারে ব্রিটেন তার অতীতের ভুল নীতির পুনরাবৃত্তি করে যাচ্ছে।

হামাসের বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ব্রিটিশ সরকার ফিলিস্তিনি জনগণের অধিকার লঙ্ঘনের ঐতিহাসিক ভুল সংশোধন ও ক্ষমা চাওয়ার পরিবর্তে নির্যাতিত ফিলিস্তিনিদের সংগঠনকে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী বলে অভিহিত করেছে।

ব্রিটেনের এ ধরনের ঘোষণায় ভয় পায় না হামাস, বরং যেকোনো মূল্যে ফিলিস্তিনি জনগণের স্বার্থ রক্ষায় বদ্ধপিরকর। বিবৃতিতে ফিলিস্তিন প্রসঙ্গে দ্বৈত নীতি পরিহার করতে ব্রিটেন ও জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে হামাস।

শুক্রবার ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, কেউ হামাসের প্রতি সমর্থন প্রকাশ করলে, তাদের পতাকা উড়ালে বা সংগঠনের জন্য বৈঠকের আয়োজন করলে তা দেশটির প্রচলিত আইনের লঙ্ঘন হবে। এক্ষেত্রে দোষী ব্যক্তিকে সন্ত্রাসবাদকে মদদ দেওয়ার অভিযোগে ১৪ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে। #যুগান্তর#

সামঞ্জস্যপূর্ণ সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।