সাধারণ

বরকলের ভূষনছড়ায় দুষ্কৃতিকারীদের হামলায় সাংবাদিকসহ আহত-৩

 

 আরিফুল ইসলাম : বরকলের ভুষনছড়া ইউনিয়নের ৭নং সরকার পাড়া চেকদোয়াছড়া ব্রিজ এলাকায় একটি সংঘর্ষে সাংবাদিকসহ মোট তিনজন আহত হয়েছেন। স্থানীয়দের থেকে পাওয়া তথ্যমতে,বরকল উপজেলায় ভূষণ ছড়া ইউনিয়নের ৭ নং চেকদোয়াছড়া পাড়ায় সরকারী ব্রিজ হওয়ার পর বাজেট বরাদ্দ হয় ২০ লক্ষ টাকার, ব্রিজ এর কোন কার্যক্রম পরিলক্ষিত হয়নি মর্মে একদল লোকের সমাগম হয়। তবে উক্ত কাজের ব্যাপারে সাংবাদিকগন পরিদর্শনে আসে।এসময় চ্যানেল২৪ এর সাংবাদিক জিয়াউল হক উক্ত ব্রীজটির পাইলিংয়ের কাজ সম্পর্কে অত্র এলাকার ইউনিয়ন দলনেতা শামসুল আলমকে ও চকিদার আহমদ ফরাজিকে জিজ্ঞেস করতে চাইলে মোতালেব, শাহীন, রফিক পিসি,সায়েরা দয়াল চাকমা,সুলতান মিস্টিওয়ালা,বেলাল ও হাসানের নেতৃত্বে প্রায় ২০-২৫ জনের একটা গ্রূপ উক্ত ৭ নং ওয়ার্ডের চকিদার আহমদ ফরাজির ওপড় প্রথমে চড়াও হয়।এসময় বিবিসিনিউজ২৪ এর জেলা প্রতিনিধি মো আরিফুল ইসলাম উক্ত ঘটনার প্রতিবাদ করলে ছালাম,গনি,সোহেল,বেলাল,শাকিল,ফরিদ,এখলাস,শাহজাহান,আদম,জান্নাতসহ আরো কিছু ব্যক্তি মিলে রড,শাবল ও লাঠি দিয়ে এলোপাথাড়ি ভাবে মারধোর শুরু করেন।এসময় শামসুল আলম চ্যানেল২৪ এর সাংবাদিক জিয়াকে উক্ত বিষয়টি অবগত করতে চাইলে রফিক পিসিসহ,গনি,ছালাম,ফরিদ,সায়েরা,লিঠান,হানিফ,ইলিয়াসসহ আরো প্রায় ১০ -১৫জন মিলে তাকে রড শাবল ও লাঠি দিয়ে মাটিতে ফেলে মারধর করতে থাকে। পরবর্তীতে সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম পার্শবর্তী একটা বাড়িতে আশ্রয় নিলে তাকে সেখানে গিয়েও মারধর করা হয়। বিষয়টি দামা চাপা দিতে এবং নিজেদের উক্ত কুকর্ম দামাচাপা দেবার চেষ্টায় সুলতান মিষ্টিওয়ালা ও সায়েরাকে দিয়ে বরকল থানায় দুটো অভিযোগ দায়ের করা হয়। অন্যদিকে শামসুল আলম ও আরিফুল ইসলামের চিকিৎসার জন্য রাঙ্গামাটিতে নেয়া হলে তাদের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে তাদেরকে চট্টগ্রাম মেডিকেলে স্থানান্তর করা হয়। তবে অভিযুক্তদের বিষয়ে কোন মতামত নেওয়া সম্ভব হয়নি।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button