খাগড়াছড়ি

পানছড়ির স্বেচ্ছাশ্রমের রাস্তায় হাটু সমান কাঁদা

পানছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ি পানছড়ি উপজেলায় এলাকাবাসীর স্বেচ্ছাশ্রমে নির্মিত রাস্তায় জমে থাকে হাঁটু সমান কাঁদা। এই কাঁদা পার হয়েই শিক্ষার্থী ও পথচারীর নিত্য চলাচল। ৩নং সদর পানছড়ি ইউপির কালানাল কাদেরের দোকানের পাশ দিয়েই বয়ে গেছে এই রাস্তা। বিগত সাত বছর আগে স্বেচ্ছাশ্রমে রাস্তাটি চলাচলের উপযোগী করে তোলে কয়েকজন গ্রামবাসী। যার নেতৃত্বে ছিলেন এলাকার বিনিময় কার্বারী। কিন্তু দীর্ঘ বছর পার হলেও রাস্তাটিকে আধুনিকায়নের জন্য এগিয়ে আসেনি প্রশাসন বা কোন সংস্থা। জানা যায়, এই রাস্তা দিয়ে হলধর পাড়া, জগপাড়া, নোয়াপাড়া, আলী চান পাড়া, চন্দ্র কার্বারী পাড়া ও শচীন্দ্র কার্বারী পাড়ার সর্বস্তরের লোক-জনের চলাচল। তাছাড়া কালানাল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, পানছড়ি বাজার উচ্চ বিদ্যালয়, পানছড়ি সরকারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয় ও পানছড়ি সরকারী কলেজে পড়ুয়া শিক্ষার্থী ও শত শত লোক চলাচল করে এই পথে। বোধিপুর অরণ্য কুটিরেও যেতে হয় এই রাস্তা দিয়ে। সকলের দাবী রাস্তাটিকে যেন জরুরী ভিত্তিতে ইট সলিং করা হয়। এদিকে পানছড়ি বাজার হতে শনটিলা সড়কটিরও বেহাল দশা। বছরের পর বছর ধরে শুধু প্রতিশ্রুতিই পাচ্ছে পথচারীরা। ছয় কিলোমিটারের এই রাস্তাটি পুরোটাই খানাখন্দে ভরা। বর্তমানে রাস্তাটি সম্পুর্ন জনচলাচলের অনুপযোগী। পানছড়ি উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) মো: আবদুল খালেক জানান, আমি সদ্য পানছড়ি কর্মস্থলে যোগদান করেছি। রাস্তাটি সরেজমিনে পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করবেন বলে আশ্বাস প্রদান করেন

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button