বান্দরবান

নাইক্ষ‍্যংছড়িতে এই প্রথম স্থাপিত হলো ৫২ ফুট উঁচু বৌদ্ধ মূর্তি

মোহাম্মদ ইউনুছ নাইক্ষ‍্যংছড়ি: বান্দরবান পার্বত্য জেলার সীমান্তবর্তী উপজেলা  নাইক্ষ্যংছড়িতে ৫২ ফুট উঁচু গৌতম বৌদ্ধের মূর্তির প্রতিবিম্ব  উদ্বোধনী উপলক্ষ্যে আড়ম্বরপূর্ণ এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছেন স্থানীয় বৌদ্ধধর্মাবলম্বী বড়ুয়া সম্প্রদায়।  শনিবার ( ২৯ অক্টোবর)  সকাল ১০ টায়নাইক্ষ্যংছড়ি সদরের নাইক্ষ্যংছড়ি প্রজ্ঞামিত্র অরণ্য বিদর্শন ভাবনা কেন্দ্র প্রঙ্গনে অনুষ্টিত অনুষ্ঠানে সংঘরাজ, উপ-সংঘরাজ, প্রজ্ঞাবান ভিক্ষু সংঘ,সরকারী কর্মকর্তা, স্থানীয় নেতৃবৃন্দসহ সুধীজন উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে হাজারো ভক্তের দুপুরের খাবারের আয়োজন ছিলো।  বিশাল  এ অনুষ্ঠান ছিলো সীমান্ত এলাকা বড়ুয়া সম্প্রদায়ের প্রথম অনুষ্ঠান।
এ অনুষ্ঠানের  আয়োজক ও সমন্বয়ক ছিলেন  বিরেন্দ্র বড়ুয়া (লেড়ু)  ও তার সহধর্মিণী মিনু বড়ুয়া, সুমন বড়ুয়া ও  পরিবারবর্গ এবং নাইক্ষংছড়িস্থ বড়ুয়া পাড়াবাসী। ৫২ ফুট উঁচু গৌতম বৌদ্ধের প্রতিবিম্বটি
উদ্বোধন করেন, ভারতের মুম্বাই অজান্তা বৌদ্ধ বিহারের প্রতিষ্টাতা উপ-সংঘরাজ ধর্মরত্ন মহাথের, নন্দন কানন বৌদ্ধ বিহারের আবাসিক সদ্ধমর্শ্রী প্রিয়রত্ন মহাথের, সভাপতি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভা এর  উপ-সংঘরাজ শাসনপ্রিয় মহাথের।  আশীর্বাদক ছিলেন  নাইক্ষ্যংছড়ি সদরের ধুংরি হেডম্যান পাড়া বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ, আছাবা মহাথেব।
 দুপুরের পর  দ্বিতীয় পর্বের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উখিয়া সংঘরাজ ভিক্ষু সমিতির সভাপতি ভদন্ত ধর্মপাল মহাথের। এ পর্বে আশীর্বাদক ছিলেন মানিকপুর বিজায়ানন্দ বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত বিজয়রক্ষিত মহাথের,। বিশেষ অতিথি ছিলেন পশ্চিম মরিচ্যা দীপাংকুর বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত বিমল জ্যোতি মহাথের, ধেছুয়াপালং শ্রদ্ধাংকুর বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত ইন্দ্রবংশ মহাথের,প্রধান সদ্ধর্মদেশক ভদন্ত তিলোকাবংশ মহাথেরসহ আরো ডজনাধিক অধ্যক্ষ।
 অনুষ্টানে বিশেষ সদ্ধর্মদেশক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন রামু উত্তর মিঠাছড়ি বিমুক্তি বিদর্শন ভাবনা কেন্দ্রের প্রতিষ্টাতা ভদন্ত করুনাশ্রী মহাথের, কক্সবাজার উঃ কোসল্লা বৌদ্ধ ড়ঙ অধ্যক্ষ ভদন্ত জ্ঞানপ্রিয় মহাথের,নাইক্ষ্যংছড়ি প্রজ্ঞামিত্র অরণ্য বিদর্শন ভাবনা কেন্দ্রের আবাসিক অধ্যক্ষ প্রজ্ঞাদত্ত থেরসহ আরো অনেকে। অনুষ্ঠানের পরের অংশে সমবেত বন্দনা ও ফানুস উত্তোলন করা হয়।এলাকায় আকর্ষণসৃষ্টিকারী ৫২ ফুট স্বর্ণ বৌদ্ধ মূর্তির প্রতিবিম্ব দেখতে এলাকা হাজার হাজার মানুষ ভীড় জমাচ্ছে।
আয়োজক কতৃপক্ষ এ মহতি সহযোগীতার জন্যে পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগ এবং উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যাপক শফিউল্লাহসহ
সকল নেতৃর্বৃন্দের কাছে কৃতজ্ঞতা জানান।
উক্ত অনুষ্ঠানে পাশ্ববর্তী এলাকার অসংখ্য বুদ্ধ ধর্মাবলম্বী নারী পুরুষের পথচারণায় মুখরিত হয় অনুষ্ঠানস্থল।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button