সাধারণ

দৈনিক সবুজ পাতার দেশ পত্রিকা পরিবারের অর্থায়নে শরন জ্যোতি ত্রিপুরাকে ঢেউটিন উপহার

প্রতিনিধি : খাগড়াছড়ি থেকে প্রকাশিত দৈনিক সবুজ পাতার দেশ পত্রিকা পরিবারের অর্থায়নে খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলাধীন আমতলী ইউপির সুবিধাঞ্চিত দূর্ঘম ৮নং ওয়ার্ড় অনন্ত কারবারী পাড়ার দরিদ্র শরন জ্যোতি ত্রিপুরার বসতঘর নির্মাণের জন্য উপহার হিসেবে ঢেউটিন প্রদান করা হয়েছে। অনন্ত কারবারী পাড়া দূর্ঘম ত্রিপুরা অধ্যুষিত এলাকা। মাটিরাঙ্গা-তবলছড়ি সড়কের আমতলী ইউপি থেকে দূরত্ব প্রায় ৯ থেকে ১০ কিলোমিটার। শীত মৌসুমে কয়েক কি:মি: গাছ ব্যবসায়ীদের জীপ গাড়ী চলাচল করলেও বর্ষাকালে তা দূরূহ। দূর্ঘমতার কারনে এখানের কেউ সরকারী ঘর বরাদ্ধ পায়নি। স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, আমতলী ইউপির ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দারা অত্যান্ত দরিদ্র হলেও মূল সড়ক থেকে প্রায় ১০ কি:মি: দূরত্বের কারণে এই দুই ওয়ার্ডে একজন ব্যক্তিও সরকারী ঘর পায়নি। বাসিন্দাদের অধিকাংশেরই ঘর খড়খুটো দিয়ে তৈরি। খাগড়াছড়ি জেলা বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি  ও সবুজ পাতার দেশ পত্রিকার প্রতিনিধি জ্যোতি ত্রিপুরার অনুরোধে কিছু দরিদ্র পরিবারের বসতঘর নির্মাণের জন্য নিজস্ব অর্থায়নে ঢেউটিন প্রদানের উদ্যোগ গ্রহন করে খাগড়াছড়ি থেকে প্রকাশিত দৈনিক সবুজ পাতার দেশ পত্রিকার পরিবার। সে লক্ষ্যে  গত বৃহস্পতিবার  অনন্ত কারবারী পাড়ার দরিদ্র শরন জ্যোতি ত্রিপুরার বসতঘর নির্মাণের জন্য ঢেউটিন প্রদান করেন প্রতিনিধি জ্যোতি ত্রিপুরা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অত্র ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক উজ্জ্বল বিকাশ ত্রিপুরা এবং তৈমুক স্পোর্টিং ক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক, ধন বিকাশ ত্রিপুরা ুপ্রমূখ। অত্র ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের কিছু সংখ্যক দরিদ্র পরিবারের বসতঘর নির্মাণের জন্য ঢেউটিন প্রদানের আশ্বাস দিয়েছেন খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস।
উল্লেখ্য, ২০২১ সালে আমতলী ইউপির ৬ ও ৭ নং ওয়ার্ড়ের ৩ দরিদ্র পরিবারের বসতঘর নির্মাণের জন্য পার্বত্য প্রেস ক্লাব ও দৈনিক সবুজ পাতার দেশ পত্রিকার অর্থায়নে ঢেউটিন প্রদান করা হয়।

শরন জ্যোতি ত্রিপুরার বসতঘর

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button