সাধারণ

অচাই পাড়া বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়

প্রতিনিধি : চারপাশ পাহাড় ঘেরা খাগড়াছড়ি শহর থেকে প্রায় ৮ কিলোমিটার দূরত্বে সদরে অবস্থিত অচাই পাড়া। খাঁড়া উচুঁ পাহাড়ে প্রায় ২০০ বছরের বসবাস ত্রিপুরা পাড়া। অচাই নামটি ত্রিপুরা ভাষায় রূপান্তর করলে বৈদ্য/পৌরহিত। পাশে আরো দূর্গম পাহাড়ে গড়ে উঠেছে তিনটি গ্রাম চৌদ্দখর, সংঘপাড়া ও দেওয়ান পাড়া। এই তিনটি পাড়া মাটিরাঙ্গা উপজেলার অর্ন্তভূক্ত। উচুঁ পাহাড় ঘেরা যাতায়াত ব্যবস্থা না থাকায় অচাই পাড়া একটি মাত্র রাস্তা হতে যাতায়াত করতে হয় এই তিন পাড়াবাসীর। চারটি পাড়া মিলে প্রায় ১৫০ ত্রিপুরা সম্প্রদায় বসবাস। এলাকার লোকজন জুম চাষের উপর নির্ভরশীল। এই চার গ্রামে নেই কোন বিদ্যুৎ, ছিলনা কোন স্কুল, নেই কোন নিরাপদ পানির ব্যবস্থা। ছড়া ও কূয়া থেকেই পানি সংগ্রহ করতে হয়।
এই চার গ্রামের শিক্ষার্থীদের মাটিরাঙ্গা উপজেলা আলুটিলা পূর্ণবাসন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যেতে হয়। ৩/৫ কিলোমিটার পথ হেঁটে যেতে হতো। উচুঁ নিচু পাহাড় বেয়ে এই দীর্ঘ পথহাটার কারনে শিশুরা ক্লান্ত হয়ে পড়তো।
তাই চার পাড়াবাসীর উদ্যোগে ১৯৯৬ সালে অচাই পাড়া একটি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাাপন করে। কোন প্রতিষ্ঠান থেকে সহযোগীতা না পাওয়ায় স্কুলটি টিকে রাখার সম্ভব হয়ে উঠেনি। আরো একটি প্রধান কারণ হল বর্ষাকালে প্রচুর বৃষ্টিপাত হয় পাহাড়ে। ফলে বাতাসে বেড়ার স্কুল ঘরটি ভেঙ্গে যায়। প্রতি বছর স্কুল মেরামত করা তাদের পক্ষে সম্ভব নয়। তারপরও গ্রামবাসীরা হাল ছাড়েনি। আবার ২০১৩ সালে একটি বেড়া স্কুলঘর নির্মাণ করেন গ্রামবাসীদের চাদাঁর টাকায় । ২০১৭ সালে আবারও টিনের বেড়া পূণনির্মাণ করে ২০১৮ সাল থেকে পূরোদমে ক্লাশ আরম্ভ হয়। স্কুলে ৪০ জন ছাত্রছাত্রী রয়েছে। র্দীঘদিনের চাওয়া পাওয়া চার পাড়াবাসী স্কুলটি কার্যক্রম ভালো হতে দেখে অনেক খুশি। তারপরও শঙ্কা আছে যে বর্ষাকালে আবার কি বাতাসে উড়ে নিয়ে যাবে কি! (চলমান..)

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Back to top button