রামগড়ে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে ছোট ভাইকে গুলির অভিযোগ পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে

রামগড়ে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে ছোট ভাইকে গুলির অভিযোগ পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে

রামগড় অফিস:
জেলার রামগড়ে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে আপন ছোট ভাইকে গুলি করার অভিযোগ উঠেছে রামগড় পৌরসভার মেয়র কাজী শাহজাহান রিপনের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় আরেক সহোদর মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে আহত হয়েছেন।
রবিবার (১৫নভেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে সোনাইপোল নিজ বাড়ী কাজী ভিলায় এই হতাহতের ঘটনা ঘটে। গুলিবিদ্ধ কাজী শাহরিয়ার ইসলাম সাহেদ কে আশংকাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে। আরেক সহোদর জিয়াউল হক শিপন মাথায় আঘাত পেয়ে হাসপাতালে ভর্তি খবর পাওয়া গেছে। সাহেদ সোনাইপোল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী তাদের আরেক সহোদর কাজী সাইফুল ইসলাম শিমুল জানান, দীর্ঘদিন ধরে অন্যায়ভাবে পারিবারিক সম্পত্তি জোর করে দখল এবং বিপুল অংকের টাকা আত্মসাতের কারণে মেয়র কাজী রিপনের সাথে তাদের ভাইদের দ্বন্দ্ব চলে আসছিলো। যার পরিপ্রেক্ষিতে অতর্কিতভাবে ভাবে এই হামলার ঘটনা ঘটে। বাজারে কাজ শেষে নিজ বাড়ীতে প্রবেশের মুহুর্তেই মেয়র কাজী রিপন এবং তাদের অপর ভাই জিয়াাউল হক শিপন এসেই সাহেদ কে কিল, ঘুষি মেরে মাটিতে ফেলে দেয়। এক পর্যায়ে কাজী রিপন ক্ষিপ্ত হয়ে তার পায়ে গুলি করে। এতে সে অজ্ঞান হয়ে পড়লে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রামগড় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। তার অবস্থা আশংকাজনক দেখে কর্তব্যরত ডাক্তার চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে। তার আরেক ভাই কাজী শিপন কি জন্য আঘাত প্রাপ্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি এটি তার জানা নেই বলেও জানান।

মেয়র কাজী শাহজাহান রিপন অবশ্য গুলির বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, আহত অবস্থায় তার দুই ভাইকে প্রথমে স্থানীয় ও পুলিশের সহযোগিতায় হাসপাতালে আমিই পাঠিয়েছি।

রামগড় থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ সাামসুজ্জামান জানান, পৌর মেয়র কাজী রিপন এবং তার ভাইদের মাঝে পৈতৃক সম্পত্তি নিয়ে দীর্ঘদিন দ্বন্দ¦ চলছে। পারিবারিক দ্বন্দ্বের জের ধরে ভাইদের মাঝে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। গুলিবিদ্ধ ও মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে দুইভাই চিকিৎসাধীন আছেন। তবে এ নিয়ে থানায় এখন পর্যন্ত কোন পক্ষই অভিযোগ দায়ের করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্তের মাধ্যমে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

বিস্তারিত

সামঞ্জস্যপূর্ণ সংবাদ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

one × five =